টেক নিউজ

মোবাইল গেমিংয়ে আবারো এন্ট্রি শাওমির

বিংশ শতাব্দীতেও হয়তো কেউ ভাবেনি ছোট একটি স্মার্টফোন দিয়েই করা যাবে সব কিছু। তবে ভবিষ্যত বেশী দূরে ছিল না। এখনকার স্মার্টফোনে কী নেই? সবই আছে। আগে বিভিন্ন ক্যাটাগরীতে ফোনের বেশী পার্থক্য থাকলেও, এখন হায়ার মিডরেঞ্জ কিংবা ফ্ল্যাগশিপ কিলার ক্যাটাগরীর ফোনেও কিন্তু কিছু কিছু ফিচার্স, ফ্ল্যাগশিপ ফোনের মতোই থাকে। তাহলে প্রশ্ন আসতে পারে, গেমিং ফোন কী কোনো ব্র‍্যান্ডের ফ্ল্যাগশিপ ফোন? আসলে তা নয়। সব ব্র‍্যান্ডেরই নিজস্ব ফ্ল্যাগশিপ লাইনাপ থাকে। যেখানে ব্ল্যাকশার্ক হচ্ছে শাওমির গেমিং সিরিজের স্মার্টফোন!

গেমিং ফোন এখন বেশ কমন হয়ে যাচ্ছে। তবে এর ভেতর সবচেয়ে জনপ্রিয় বলা যায়- আসুসের ROG, শাওমি ব্ল্যাকশার্ক এবং নুবিয়া রেডম্যাজিক সিরিজ। নুবিয়া এবং আসুস দুই ব্র্যান্ডই তাদের গেমিং ফোন লঞ্চ করেছে এ বছর। তবে শাওমি এদিকে বেশ পিছিয়ে ছিলো, ২০২১ এ এসে তারা আনছে তাদের ব্ল্যাকশার্ক ৪!

মার্চের ২৩ তারিখ আসছে নতুন এই ডিভাইসটি। বলতে গেলে এখনো কোনো কিছু স্পষ্টভাবে জানা যায়নি। তবে একটি গেমিং ফোনে সাধারণত কী থাকতে পারে আমরা সেটা সবাই জানি। ২০২১ সালের রকিং স্পেকস, সাথে গেমিংয়ের জন্য বিশেষ কিছু ফিচার্স তো থাকবেই। বিভিন্ন ব্র‍্যান্ডের মতো ব্ল্যাকশার্ক ফোনেও থাকবে হায়ার রিফ্রেশরেট ডিসপ্লে। এছাড়া, নতুন একটি কাস্টমাইজড ইউ আই তো আছেই ডিভাইসটির সাথে! তবে দেখার বিষয় প্রতিযোগীদের থেকে এগিয়ে যাওয়ার জন্য নতুনত্ব কি আনে শাওমি!

আপকামিং এই ফোন নিয়ে আপনাদের কিছু জানা থাকলে শেয়ার করতে পারেন আমাদের সাথে।

Avatar

Fardin Niloy